ঢাকা সোমবার, অক্টোবর ২১, ২০১৯



টেক্সটাইল ট্যালেন্ট হান্ট’ ২০১৭-১৮ এর গ্র্যান্ড ফাইনাল এবং পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান সম্পন্ন

নিজস্ব প্রতিবেদক: বস্ত্র শিল্পের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয় ও প্রতিষ্ঠানের ছাত্রদের জন্য প্রতিযোগিতামূলক অনুষ্ঠান ‘টেক্সটাইল ট্যালেন্ট হান্ট’ ২০১৭-১৮ এর গ্র্যান্ড ফাইনাল এবং পুরস্কার প্রদান অনুষ্ঠান গত ৪ আগস্ট ২০১৯ সম্পন্ন হয়েছে।

উত্তরা ক্লাব ফ্যামিলি লাউঞ্জে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতার সর্বশেষ পর্বে বিজয়ী হয়েছেন বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র রাশেদুল ইসলাম।

প্রথম ও দ্বিতীয় রানার্স-আপ হয়েছেন যথাক্রমে ফাহমিদা ফাইজা ফাহমি ও নীপা খায়ের। এই তিনজন বিজয়ীই নির্বাচিত হয়েছেন বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয় থেকে।

চ্যাম্পিয়ন রাশেদুল ইসলাম পুরস্কার হিসেবে পেয়েছেন ৭৫ হাজার টাকা মূল্যের একটি চেক। আর প্রথম ও দ্বিতীয় রানার্স-আপ পেয়েছেন যথাক্রমে ৪০ ও ২৫ হাজার টাকার চেক।

এবারের বিজয়ী রাশেদুল ইসলাম নিজের অনুভূতি প্রকাশ করতে গিয়ে বলেন, ‘আমি সত্যিই খুব আনন্দিত যে বিচারকগণ আমাকে চ্যাম্পিয়ন হিসেবে নির্বাচিত করেছেন।’

বিজিএমইএ ইউনিভার্সিটি অব ফ্যাশন অ্যান্ড টেকনোলজির (বিইউএফটি) উপ-উপাচার্য ইঞ্জিনিয়ার আইয়ুব নবী খান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ প্রতিযোগিতায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ টেক্সটাইল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক মোঃ আবুল কাশেম।

বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাউথইস্ট ইউনিভার্সিটি এর স্কুল অফ সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং এর চেয়ারম্যান অধ্যাপক সৈয়দ ফখরুল হাসান; অকো-টেক্স লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক আবদুস সোবহান; এপিএস গ্রুপের চেয়ারম্যান মোঃ হাসিব উদ্দিন; টিম গ্রুপের ম্যানেজিং ডিরেক্টর আবদুল্লাহ হিল রাকিব; মাসকো গ্রুপের নির্বাহী পরিচালক এটিএম মাহবুবুল আলম চৌধুরী; ডাইসিন গ্রুপের পরিচালক আমানুর রহমান এবং সুইস কালার্স বাংলাদেশ লিমিটেডের চিফ অপারেটিং অফিসার এস এম হাফিজুর রহমান নিক্সন।

এই প্রতিযোগিতার দীর্ঘ প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে একেবারে শেষ ধাপে এসে সেরা প্রতিভাদের মধ্যে সর্বশেষ ৫ জন তাদের গবেষণার প্রকল্প এই পর্বে উপস্থাপন করেন।

বিচারকগণ গ্র্যান্ড ফাইনালে প্রতিযোগীদের গবেষণার প্রকল্প উপস্থাপন ও প্রশ্ন-উত্তরের ভিত্তিতে প্রাপ্ত পয়েন্ট ও পূর্বেকার রাউন্ডে প্রাপ্ত পয়েন্ট সমষ্টিতে বিজয়ী নির্বাচন করেন।

প্রধান অতিথি অধ্যাপক মোঃ আবুল কাশেম বাংলাদেশ টেক্সটাইল টুডে কর্তৃপক্ষকে এরূপ গবেষণা নির্ভর প্রতিযোগিতা আয়োজন করার জন্য ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ‘টেক্সটাইল টুডে হলো একটি গভীর শিকড়যুক্ত বৃক্ষের ন্যায় যেটি বহু ঝড়-ঝাপটা পাড়ি দিয়ে এমন এক প্ল্যাটফর্মে পরিণত হয়েছে যা বস্ত্র শিল্পকে নতুন নতুন উদ্ভাবনের দিকে উৎসাহিত করতে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।’

টেক্সটাইল ট্যালেন্ট হান্ট ২০১৭-১৮’র গ্র্যান্ড ফাইনালের আয়োজক টেক্সটাইল টুডে ও মাসিক মসলিন এর প্রতিষ্ঠাতা ও সম্পাদক তারেক আমিন বলেন, ‘টেক্সটাইল ট্যালেন্ট হান্ট এর মাধ্যমে আমরা নতুনদের আরও বেশি করে ইন্ডাস্ট্রিতে সম্পৃক্ত করতে পারছি। আমাদের ৭ম টেক্সটাইল ট্যালেন্ট হান্ট হবে নতুন আঙ্গিকে। যেটির একটি বিশেষ উদ্দেশ্য হবে পোশাক শিল্পের জন্য নতুন নেতৃত্ব তৈরি করা।


আর্কাইভ